ধর্মান্তরিত হিন্দু মেয়েকে ফেরাতে থানায় তার পায়ে ধরে কাঁদছে তার ১০ মাস ১০ দিন গর্ভে ধারণকারী মা!!!!!

Blog Uncategorized
আপনার ঘরের মেয়েকে ছেলেকে নাচগান,আবৃতি, উচ্ছশিক্ষিত বানানোর আগে সনাতন ধর্মের প্রতি আনুগত্যের বুষ্টার ডোজ দিয়েছেন কিনা ভেবে নিন।না হয় ভবিষৎ আপনার মানবিক সন্তান
আপনার অতি মানবতার দরুন ভোগে যাবে সাবধান।
এখনো ঘরের খেয়ে নিজের পরিবারকে ঠকিয়ে ধর্মীয়ভাবে সচেতন করার জন্য হিন্দুদের দুয়ারে দুয়ারে দৌড়াই
।।।
কইজনই বা এসবে মত্ত সবাই ফটোসেশন,রেস্টুরেন্টে খানাপিনা ব্যক্তিগত জীবন যাপন নিয়েই ব্যস্ত।
নিজের পরিবারকে ভাইরাস মুক্ত করতে শিশুকাল হতেই আপনার সন্তানকে ধর্মীয় অনুরাগ গড়ে তুলতে ধর্ম সম্পর্কে জানাতে আপনাকে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালাতে হবে। 
ইতিমধ্যে পাঠ্যপুস্তক হতে হিন্দু ধর্মীয় লেখকদের লেখা কবিতা বাদ দেয়া হয়েছে, 
আপনি চিন্তা করেন আপনার ভবিষৎ সন্তান স্কুল কলেজে এমন লোকদের সংস্পর্শে থাকবে যারা ছলে বলে কৌশলে আমাদের ধর্মান্তরিত করে, তথ্য বিকৃতি, অর্থের প্রলৌভন, এর দ্বারা। 
তাই সিধান্ত নেবার পালা আপনার কি করবেন ভেবে দেখুন।
ব্যক্তিগত রংতামাশা, আনন্দফুর্তি,স্বার্থকেন্দ্রীক চিন্তা করবেন না আপনার ভবিষৎ প্রজন্মের সুরক্ষায় তাকে হিন্দু ধর্ম শিক্ষার বুষ্টার ডোজ দিবেন। না হয় আপনারই সুরন্জনা,পারমিতা , রাহুল,নিলয়জান্নাতুল ফেরদৌস,আবদুল্লাহ সাঈদ  হয়ে কোর্টে ধর্মান্তরিত হয়ে আপনার সিঁথির সিধুরে সজৌরে লাথি মারবে।আপনাকে অস্বীঃকার করবে।বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে 
প্রতিনিয়ত এসব ঘটছে।

ঘটনাটা বাংলাদেশের লক্ষীপুরের।ধর্মান্তরিত হিন্দু মেয়েকে ফেরাতে থানায় তার পায়ে ধরে কাঁদছে তার ১০ মাস ১০ দিন গর্ভে ধারন কারী মা!!!!!
কি আতকে উঠছেন?
আপনার পরিবারেও আপনার অজান্তে এই ভাইরাস ডুকে পরেছে সবাই সাবধান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *