মাদ্রাসায় ফের শিশু হত্যা

Uncategorized

মাদ্রাসায় ফের শিশু হত্যা
—————————-

এখন আইন করে মাদ্রাসা বন্ধ করে দেয়ার সময় হয়েছে। আর নয় এ শিশু হত্যা ও শিশু ধর্ষণ থামবে না। মাদ্রসার বিরুদ্ধে সোচ্চার কন্ঠ তুলুন।

এ শিশুটি কার কী ক্ষতি করতে পারে যে তাকে খুন করতে হবে? হয়তো তাকে এমন পাশবিক নির্যানত করা হয়েছে যে সহ্য না করতে পেরে তাকে মেরেই ফেলা হয়েছে। কিংবা তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে আর প্রকাশ হয়ে পড়ার ভয়ে তাকে হত্যা করা হয়েছে।

বেহেস্তের লোভে আর কত বেহেস্তি ফুলের খুন হতে দেখবো?
বেহেস্ত পাওয়ার লোভে আর কত শিশুকে তাদের বাবা মা কোরাবানী দেবে?
বেহেস্তের লোভে আর কত ভবিষ্যত নষ্ট হয়ে যাবে, অকেজো হয়ে যাবে?
বেহেস্তের লোভে আর কত শিশুর সম্ভাবনার কবর রচিত হবে?

ইসলামের দোকানদাররা যেমন কোনো দায় বোধ করে না তেমনি তাদের জালিম আল্লাহও কোনো দায় বোধ করে না। যে সত্তা তার প্রশংসা ও এবাদতের জন্য এতো এতো লালায়িত থাকে সে কখনো স্রষ্টা হতে পারে না।

খবরে প্রকাশ:

“কুমিল্লার চান্দিনায় ‘মাদ্রাসাতুল আবরার’ নামে একটি ক্বওমী মাদ্রাসা থেকে রায়হান হোসেন (১০) নামের এক শিশু ছাত্রের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার গভীর রাতে চান্দিনা উপজেলার বাড়েরা ইউনিয়নের নরসিংহপুর এলাকার ওই মাদ্রাসায় ছাত্রদের বিছানাপত্রের স্তুপের নিচ থেকে ওই ছাত্রের লাশ উদ্ধার করা হয়।

রায়হান হোসেন পার্শ্ববর্তী ডুমুরিয়া গ্রামের অটো রিকশাচালক মিজানুর রহমানের ছেলে। “

শাহীনুল হক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *