রুবানা হক অনুপ্রেরণা আর দৃষ্টান্তে এবং বহুগুণে গুণান্বিত এক জয়িতা

Uncategorized
রুবানা হক একজন বাংলাদেশী নারী ব্যবসায়ী ও কবি। তিনি মোহাম্মদী গ্রুপের বর্তমান ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতি এর নির্বাচিত প্রথম নারী সভাপতি। তিনি ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র আনিসুল হকের স্ত্রী।
রুবানা হক ম্যামের করা নিম্নের উক্তিগুলি আমাদের চলার পথের পাথেয় হতে পারে যদি আমরা অন্তর দিয়ে অনুভব করে মন থেকে নিজেদের জীবনে বাস্তবায়ন করার চেষ্টা করি।
১। ঘর ঝাড়ু দিতে হলেও এতো ভালো করে ঝাড়ু দিবে যাতে তোমার চেয়ে ঐ কাজ বেটার কেউ করতে না পারে।
২। নিজের জীবনটা এমন ভাবে গড় যাতে তুমি ইতিহাস গড়তে পারো। ইতিহাস পড়া আর গড়া এক না।
৩। জীবনে ডিসিপ্লিনের চেয়ে বড় আর কিছু নাই। ডিসিপ্লিনের বাইরে গেলেই জীবন যুদ্ধ ও জীবন যাত্রা থেকে ছিটকে পড়ে যেতে হবে।
৪। আর ১০ জনের মতো হতে যেও না, নিজের মতো থেকো, অনুসরন করো, অনুকরন করো না।
৫। কথা কম বলো, কম লিখে সব কিছু বুঝানোর চেষ্টা করো। কোটি টাকার প্রস্তাবনাও ১ পেজে লিখো, বুলেট করে লিখো। কারো সময় নাই, দুই পেজ পড়ার।
৬। প্রত্যেকদিন পড়াশুনা করবে, নিজের ক্ষেত্রে নতুন কিছু শিখবে। নিজের সাথে কম্পিটিশন করবে।
৭। চাকরি করা মানেই দাসত্ব না, চাকরি তোমার নিজের সাথে প্রতিষ্ঠানের একটা ডিল। তুমি চুক্তিমতো কাজ করবে, নিজের সেরাটা দিবে। কেউ তোমাকে মনিটর করবে না, ফাকি দিলে নিজেই ঠকবে।
৮। চাকরি করবো না, চাকরি দিবো, বিষয়টা অহংকারের নয়, কারন চাকরি যেমন দিতে পারতে হবে, তেমনি ভালোভাবে চাকরি করতেও পারতে হবে। এগুলো নিয়ে উদ্ধত কথা বলা কেউ সফল হতে পারে না। পরস্পর পরস্পরকে সম্মান করতে হবে।
৯। বিনয় মানুষকে বড় করে, অহংকার ছোট করে দেয়। সব সময় মাটির দিকে তাকিয়ে হাটবে।
১০। লিখুন, ছোট বড় প্রতিটা জিনিস লিখুন, এতে অনেক কাজ মনে থাকবে, যথাসময়ে করতে পারবেন।
[বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ এই আর্টিকেলটিতে আমার বিন্দুমাত্র ক্রেডিট নেই। আমি শুধুমাত্র জনাব রুবানা হক ম্যামের করা বিভিন্ন ভাষণ থেকে উক্তিগুলো সংগ্রহ করে এক জায়গায় সন্নিহিত করেছি]
জিনাত সুলতানা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *